সুস্বাস্থ্যের জন্য ৮ ঘণ্টা ঘুম কতটা জরুরি

প্রকাশ: ০৭ জুলাই ২০২০ |

লাইফস্টাইল ডেস্ক, বাংলাদেশ প্রেস

রাতে সঠিক সময়ের ঘুম একজন মানুষের শরীরকে প্রতিদিনের কাজের জন্য তৈরি করে। যারা রাতে দেরি করে ঘুমায় ও সকালে দেরিতে ঘুম থেকে উঠে তাদের অকালে মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ে।


এ তথ্য জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের গবেষণা। ৪ লাখ ৩৩ হাজার মানুষের ওপর জরিপ চালিয়ে দেখা যায়, সকালে তাড়াতাড়ি ওঠা ব্যক্তিদের চেয়ে রাতজাগা মানুষের অকাল মৃত্যুর আশঙ্কা ১০ শতাংশ বেশি।



গবেষণায় দেখা যায়, দেরি করে ঘুম থেকে ওঠার কারণে বিভিন্ন মানসিক ও শারীরিক জটিলতার শিকার হতে হয়। তাই সুস্বাস্থ্যের জন্য আট ঘণ্টা ঘুম জরুরি।


গবেষণাপত্রটি আন্তর্জাতিক ক্রোনবায়োলজি জার্নালে প্রকাশ করা হয়। সেখানে দেখা যায়, নিয়মিত সকালে ঘুম থেকে ওঠা ব্যক্তির গড় আয়ু রাতজাগা ব্যক্তিদের থেকে সাড়ে ছয় বছর বেশি।


বয়ঃসন্ধিকালের আগ পর্যন্ত প্রতি রাতে ১১ ঘণ্টা ঘুমানোর জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। নবজাতকের জন্য প্রতিদিন ১৮ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন বলে উল্লেখ করা হয়েছে গবেষণায়। যাদের বয়স ১৩ থেকে ১৯ বছর তাদের প্রতি রাতে ১০ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত।


একজন সুস্থ মানুষের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন। একটানা ঘুম সবচেয়ে ভালো। তবে যদি কাজের প্রয়োজনে আপনি একটানা ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমাতে না পারেন, তবে ভাগ করে ঘুমাতে হবে।